মন্দির রহস্য- নিষ্কলঙ্ক মহাদেব মন্দির

179

সারা দেশের কিছু রহস্যময় মন্দির ও তাদের সাথে জড়িত কিছু আশ্চর্য ও অলৌকিক কাহিনী আপনাদের সামনে আনতে শুরু করেছিলাম এই মন্দির রহস্য শীর্ষক ধারাবাহিক লেখনী|এই মহা শিব রাত্রি তিথীকে কেন্দ্র করে আরো একটি নতুন পর্ব নিয়ে আজ আমি আপনাদের সামনে, আজকের পর্বে দেশের অন্যতম প্রাচীন ও রহস্যময় গুজরাটের নিষ্কলঙ্ক মহাদেব মন্দির নিয়ে লিখছি|

গুজরাতের ভাবনগর জেলায় আরব সাগরের তীরে কোলিয়ক গ্রাম, এখানেই রয়েছে নিষ্কলঙ্ক মহাদেব মন্দির, একাধিক শিবলিঙ্গ রয়েছে এখানে, এগুলি স্বয়মভু অর্থাৎ নিজে থেকেই মাটির তলা থেকে প্রকট হয়েছে|

রহস্যময় ব্যাপার হলো, এই মন্দিরের দেখা সব সময় পাওয়া যায় না। শুধুমাত্র ভাটার সময় মন্দিরে পুজো দেওয়া সম্ভব হয়, জোয়ারের সময় সমুদ্রের জলের তলায় চলে যায় এই মন্দির|কেবল মন্দির চূড়ার পতাকা দেখতে পাওয়া যায়|প্রতিদিন নিদ্দিষ্ট সময়ে সূর্যোদয়ের মত সমুদ্র বক্ষ থেকে উঠে আসে। এই দৃশ্য দেখার জন্যই বহু দর্শনার্থী ভিড় করেন সমুদ্র তটে। এখনও মনোষ্কামনা পূরণের আশায় এই মন্দিরে পুজো দিতে আসেন বহু পুণ্যার্থী।

মহাভারতে এই মন্দিরের উল্লেখ আছে, কথিত আছে মহাভারতে কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধের পরে কৌরব ও অন্যান্যদের হত্যা করার পাপ ধুতে এখানেই পুজো দেন পঞ্চপাণ্ডব|

প্রায় সারাবছরই মনোষ্কামনা পূরণের আশায় এই মন্দিরে পুজো দিতে আসেন বহু পুণ্যার্থী।আপনারাও কখনো সম্ভব হলে অবশ্যই দর্শন করুন এই অদ্ভুত এবং রহস্যময় মন্দির|আবার পরের পর্বে লিখবো নতুন কোনো মন্দির নিয়ে, যারা আমার গৃহ মন্দিরের শিবরাত্রির বিশেষ পুজো ও হোম যজ্ঞে অংশগ্রহন করলেন তাদের অসংখ্য ধন্যবাদ, যারা জ্যোতিষ সংক্রান্ত সমস্যা নিয়ে আমার সাথে কথা বলতে চান বা দেখা করতে চান তারা দ্বিধা না করে ফোন করুন উল্লেখিত নাম্বারে|ভালো থাকুন|ধন্যবাদ|