শক্তি পীঠ : কালী ঘাট

293

কলকাতার ইতিহাস অতি প্রাচীন ও বর্ণময়, দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধ থেকে নকশাল আন্দোলন,ব্রিটিশ বিরোধী সংগ্রাম থেকে ক্লাইভ -সিরাজ যুদ্ধ বহু ঘাত প্রতিঘাতের মধ্যে দিয়ে গেছে এই শহর, তার সাথে আরো একটি দিক আছে শহর কলকাতার তা হলো তার আধ্যাত্মিকতা ও ধর্মীয় সাধনা যার অনেক টাই রয়ে গেছে প্রচারের আড়ালে|আপনারা হয়তো ভাবছেন একান্ন পীঠ পর্বে হটাৎ কলকাতার ইতিহাস নিয়ে লিখতে বসলাম কেনো|কারন টা হচ্ছে আজ যে জনপ্রিয় শক্তি পীঠ টির কথা লিখবো তা এই ধর্ম ও আধ্যাত্মিক চর্চার একপ্রকার প্রান কেন্দ্র, হ্যাঁ ঠিকই ধরেছেন আজ বলবো শক্তি পীঠ কালীঘাটের কথা|তবে একটি পর্বে কালী ঘাটের কথা বলে শেষ করা যাবেনা, তাই ঠিক করেছি শক্তি পীঠ পর্ব গুলির এই বিশেষ পর্ব কে দুটি পর্বে আপনাদের সামনে আনবো|

শক্তি পীঠ গুলির অন্যতম কালীঘাট নানা দিক দিয়ে তাৎপর্যপূর্ন,হিন্দু দের কাছে এটি একটি প্রধান ও জনপ্রিয় তীর্থ ক্ষেত্র||র|পীঠ মালা তন্ত্র মতে সতীর ডান পায়ের চারটি আঙ্গুল পতিত হয়েছিলো এই পবিত্র স্থানে|যদিও অন্য একটি মত অনুসারে সতীর একটি মাত্র আঙ্গুল পতিত হয়েছিলো কালীঘাট এর পবিত্র স্থানে|দেবীর ভৈরব রূপে এখানে বিরাজমান নকুলেশ্বর|দেবী এখানে দক্ষিনা কালী নামে জনপ্রিয়|

এখানে দক্ষিনা কালী সম্পর্কে কয়েকটি কথা বলে রাখা ভালো| দক্ষিণাকালী করালবদনা, ঘোরা, মুক্তকেশী, চতুর্ভূজা এবং মুণ্ডমালাবিভূষিতা। তার বামকরযুগলে সদ্যছিন্ন নরমুণ্ড ও খড়্গ দক্ষিণকরযুগলে বর ও অভয় মুদ্রা।দক্ষিণা কালীর ডান পা শিবের বুকে। তিনি কালীর অন্যান্য রূপ থেকে কিছুটা ভিন্ন এবং তাকে সাধারণত ঘর এবং মন্দিরে পূজা করা হয়। তার গাত্রবর্ণ গভীর নীল,তিনি দিগম্বরী। তার গলায় মুণ্ডমালার হার শোভা পায় |এই রূপ ও এক রহস্য নানা ভাবে যার ব্যাখ্যা করা হয়|

কালী ঘাট মন্দিরে প্রতিষ্ঠিত দেবী মূর্তি কষ্ঠি পাথরে নির্মিত|দেবীর জিভ, দাঁত মুকুট, এমনকি মুন্ড মালাটিও সবই স্বর্ণ দ্বারা নির্মিত |মন্দিরের মধ্যে একটি বিশেষ কক্ষে একটি সুরক্ষিত সিন্দুকে দেবীর প্রস্তরীভূত অঙ্গ টিও স্বজত্নে রক্ষিত আছে যা কখনো জন সমক্ষে আনা হয় না|

আজ কালীঘাট নিয়ে প্রথম পর্বে এটুকুই, ফিরে আসছি পর্বে এই বিশেষ শক্তি পীঠের নানা অজানা কথা ও ইতিহাস নিয়ে, সঙ্গে থাকুন পড়তে থাকুন আর নতুন করে বলবো না শুধু মনে করিয়ে দেবো জ্যোতিষ সংক্রান্ত যেকোনো বিষয়ে পরামর্শ ও সমস্যা সমাধানের জন্য উল্লেখিত নাম্বারে যোগাযোগ করতে পারেন আর অবশ্যই চোখ রাখুন আমার ইউটিউব চ্যানেল ও সি টি ভি এন এর পর্দায় আমার অনুষ্ঠানে |আমি সর্বদা আছি আপনাদের পাসে |ধন্যবাদ |