মন্দির রহস্য – বিবিমাতা মন্দির

394

পরিচিত পৌরাণিক ও লৌকিক দেবদেবীদের পাশাপাশি এই গ্রাম বাংলায় পূজিত হন বহু লৌকিক দেব দেবী যাদের মন্দির ঘিরে রয়েছে বহু রহস্যময় লোকগাথা বিগত একটি পর্বে আপনাদের বন বিবির কথা বলে ছিলাম আজ বলবো দক্ষিণ বঙ্গের এক জনপ্ৰিয় ও রহস্যময় দেবী বিবি মাতা ও তার প্রাচীন মন্দিরের কথা|

বিবিমাতার উৎপত্তি সম্পর্কে নানা মতবাদ আছে|একটি জনশ্রুতি অনুসারে কোন এক হিন্দু জমিদারের ৭টি কন্যা সন্তান ছিলো কিন্ত তাদের বিয়ে হয়েছিলো মুসলমান ঘরে|তারা দেবী মর্যাদা পান এবং লোকসমাজে ‘সাতমা ’ বলে পরিচিত হন।এক হিন্দুজমিদারের ৭জন কন্যা ছিলো। তারা ধর্মপ্রাণ ছিলেন। একদিন তাদের সঙ্গে দেখা করেন এক পীরবাবা।পীরবাবার দয়ায় সাত কন্যার বিবাহ হয় এক ধর্মপ্রাণ মুসলমান জমিদারেরে পুত্রের সঙ্গে এবং পরবর্তীতে ক্রমে এই নারীদের মধ্যে দৈবী শক্তির বিকাশ ঘটে।

এই সাতবোন সপ্ত মাতা নামে কিছু স্থানে
পরিচিত যযেহেতু মুসলিম পরিবারের তাদের বিবাহ হয়েছিলো তাই বিবি শব্দটি জুড়ে যায় নামের সাথে|এদের নাম যথাক্রমে ওলাবিবি, ঝোলাবিবি, ঝড়িবিবি, চাঁদবিবি, বহেড়াবিবি, মড়িবিবি ও আসানবিবি।সাতটি বিবি সাতটি রোগের নিরাময়কারী দেবী হিসাবে পুজিত হন।যার মধ্যে কলেরা বা ওলাওটা রোগের দেবী হিসাবে ওলাবিবি বা ওলাইচন্ডী দেবী নামে পরিচিত।বিবিমাতা হলেন ওলাবিবি বা ওলাইচন্ডী|

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার আলিদা গ্রামে রয়েছে প্রাচীন ও জনপ্রিয় বিবি মাতার মন্দির|তবে এই স্থানকে মন্দির না বলে থান বলা হয় কারণ হল এখানে কোন মন্দিরের স্থাপত্যর ছোঁয়া নেই।
একটি বেদীআছে|গর্ভ গৃহ আছে| দেবীর মূর্তির বৈচিত্র্য আছে।মাথায় ঘন চুল। আর ডান হাত তুলে আশীর্বাদ করছেন।আলিদাবিবি মাতা-কে নানা ধরনের শাড়ি পরানো হয়|

এই বিবি মাতার মন্দির হিন্দু মুসলিম সম্প্রদায়ের এক অপূর্ব মিলন স্থল|দুই সম্প্রদায়ের মানুষ একত্রে এই বিবি মাতার থানের পরিচর্যা করেন|
প্রতিবছর চৈত্র মাসে ২৪,২৫,ও ২৬ তারিখে বিশেষ হাজত বা পুজো ব্যবস্থা করা হয়|এই পূজা উপলক্ষে আলিদা গ্রামে বিরাট মেলা বসে|তিন দিন ধরে চলে বিরাট উৎসব এবং জাতী ধর্ম নির্বিশেষে এই উৎসবে যোগদান করেন অসংখ্য মানুষ|

আজ বিদায় নিলাম|আবার আগামী পর্বে কলম ধরবো নতুন কোনো পর্বে|মনে রাখবেন নিয়মিত ভাগ্যগণনার পাশাপাশি প্রতিটি বিশেষ তিথিতে আপনাদের মা হৃদয়েশ্বরী সর্বমঙ্গলার মন্দিরের বিশেষ পুজো ও গ্রহ দোষ খণ্ডন অনুষ্ঠানে আমি নিজে উপস্থিত থাকি|প্রয়োজনে উল্লেখিত নাম্বারে যোগাযোগ করবেন|ভালো থাকুন|ধন্যবাদ|