মন্দির রহস্য – সংকট মোচন মন্দির

348

বহু রহস্যময় শিব মন্দির ও কালী মন্দিরের কথা আপনাদের ইতিমধ্যে বলেছি যা আপনাদের প্রশংসা লাভ করায় আমার পরিশ্রম ও গবেষণা সার্থক বলে মনে করি, সামনেই হুনুমান জয়ন্তী, আমাদের সনাতন ধর্মে তিনি রূদ্র অবতার অর্থাৎ শিবের অংশ, বৈদিক জ্যোতিষ শাস্ত্রেও তার গুরুত্ব অপরিসীম|আজ এমন একটি মন্দিরের কথা বলবো যেখানে তার তার সংকট মোচন রূপকে জীবন্ত হিসেবে দেখা হয়|

কাশীর সংকট মোচন হনুমান মন্দিরকে বলা হয় জীবন্ত বিগ্রহের মন্দির|বহু মানুষ প্রতিদিন আসেন এই মন্দিরে নিজেদের গ্রহ দোষ খণ্ডন করাতে ও বজরংবলীর আশীর্বাদ নিতে|কথিত আছে এই স্থানেই হনুমানজির দর্শন পেয়েছিলেন রাম চরিত মানস ও হনুমান চালিসার স্রষ্টা সাধক তুলসী দাস|

সংকট মোচন মন্দিরের কিছু দূরেই রয়েছে শ্রীরামের মন্দির, মনে করা হয় হনুমানের অনুমতি ছাড়া তার প্রভু রামের মন্দিরে প্রবেশ করা যায়না|
অগণিত ভক্তদের বিশ্বাস বজরংবলী এখানে জীবন্ত ও অত্যন্ত জাগ্রত|প্রতিটি ভক্তের অভাব অভিযোগ তিনি নিজে শোনেন ও তাদের মনোস্কামনা পূরণ করেন|

এককালে এই স্থানে নিয়মিত আসতেন ও বিশ্রাম করতেন স্বয়ং তুলসীদাস, এখানেই তাকে প্রভু শ্রী রামের দর্শন করার পন্থা বলে দিয়েছিলেন হনুমান সাধক তুলসীদাসের একটি একটি মূর্তিও রয়েছে এখানে|

আগামী দিনে রূদ্র অবতার হনুমানকে নিয়ে আরো অনেক তথ্য আপনাদের সামনে আনবো লেখা ও ভিডিওর মাধ্যমে|দেখতে থাকুন , পড়তে থাকুন এবং এই পবিত্র সময়ে যারা জ্যোতিষ পরামর্শ বা প্রতিকার নেয়ার কথা ভাবছেন সরাসরি যোগাযোগ করুন উল্লেখিত নাম্বারে|ভালো থাকুন|ধন্যবাদ|