দেবী কালীর দিগম্বরী রূপ

39

দীপান্বিতা অমাবস্যা কেনো জ্যোতিষ ও তন্ত্র জগতের অন্যতম শ্রেষ্ট তিথি আর কেনই বা এই তিথিতে যেকোনো তন্ত্র বা জ্যোতিষ সংক্রান্ত কাজ এবং গ্রহের প্রতিকার এতো নিখুঁত ভাবে হয় তার একটি কারন হলো তিনি হচ্ছেন কালের স্ত্রীর লিঙ্গ|তাই তিনি কালী|যে কাল বা সময় আমাদের ভালো মন্দ সুখ দুঃখ সবকিছুকে নিয়ন্ত্রন করছে|তার পুজোর তিথিতে যেকোনো তন্ত্র ক্রিয়া অনেক বেশি কার্যকর হবে সেটাই স্বাভাবিক|আবার শাস্ত্রে উল্লেখ করা হয়েছে যে যে কাল সর্বজীবকে গ্রাস করে, সেই কালকে আবার যিনি গ্রাস করেন তাঁকেও কালী বলা হয়।তিনি চাইলে আমাদের সব দুঃখ, হতাশা, ব্যার্থতা, সমস্যাকে গ্রাস করে আমাদের নব জীবন দান করতে পারেন|অসীম ক্ষমতার অধিকারিণী দেবী কালী দিগম্বরী কেনো কেনই বা তার মুক্তকেশ|আজ সেই কথাই বলবো|দেবী কালী দিগম্বরী । এর অর্থ তিনি কোন কিছুর বন্ধনে আবদ্ধ নন । তিনি দেশ কালের ওপরে । তিনি সকল জীবের মাতা । এক দিকে দেবী বিশ্বমধ্যে, আবার অন্য দিকে তিনি বিশ্বব্যাপী ও বিশ্বাতীত। যাঁর স্বরূপ এমন, তাঁকে কি কোনও বস্ত্র দিয়ে আবরিত করা সম্ভব! কার কী এমন সাধ্য আছে তাঁর ওই রকম বস্ত্র তৈরী করার? তাই তিনি ঋষি কল্পনায় দিগম্বরী|অন্য একটি ব্যাখ্যাও আছে যেখানে কিছু পণ্ডিত বসনকে কামনা বাসনার প্রতীক বলেছেন|তিনি এই সবার উর্ধে তাই তিনি দিগম্বরী|তন্ত্র সাধনা বলে কামনা বাসনা আদি ষড়রিপু বর্জন করতে হবে । তবেই দেবকৃপা পাওয়া যাবে । তাই সম্পূর্ণ রিক্ত হয়ে অহং ও অবিদ্যা কে ত্যাগ করেই মায়ের কাছে যেতে হবে ।মা মুক্ত স্বভাবা । তাই তিনি মুক্তকেশী । তাঁর মাথার ঘন কালো চুল বাঁধা অবস্থায় থাকে না। যোগশাস্ত্রে মুক্তকেশ বৈরাগ্যের প্রতীক। তিনি চিরবৈরাগ্যের প্রতীক। তিনি জ্ঞানের দ্বারা লৌকিক বা জাগতিক সকল বন্ধন ছিন্ন করতে পারেন। তাঁর জ্ঞান খড়গের দ্বারা অষ্টপাশ ছিন্ন হলেই নিস্কাম সাধক দেবীর কৃপা পান । তবেই মুক্তি ঘটে।সাধক রামপ্রসাদের ভাষায় “ মুক্ত কর মা মুক্তকেশীভবে যন্ত্রনা পাই দিবানিশি । ”দেবী কালীর সেই কেশ মৃত্যুর প্রতীক । চন্ডীতে আছে মহিষাসুরের হাতে পরাজিত দেবতারা যখন ত্রিদেবের কাছে গেলেন তখন ত্রিদেব ও সমস্ত দেবতাদের তেজ রাশি একত্রিত হয়ে ভগবতী মহামায়ার আবির্ভাব ঘটে । যমের তেজে দেবীর কেশরাশি গঠিত হয় ।জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে শনিগ্রহের ইষ্টদেবী কালীকা তাই যাদের জন্মছকে গ্রহরাজ শনি অশুভ অবস্থায় আছেন বা শনির সাড়েসাতি অশুভ ফল দিচ্ছে অথবা, বিষ যোগের মতো অশুভ যোগ আছে দীপান্বিতা অমাবস্যা তিথিতে তারা বিশেষ করে নিজের গ্রহ দোষ খণ্ডন করান|নিশ্চিত ভাবে সব দুঃখ কষ্ট থেকে মুক্তি লাভ করবেন|আমি নিজে থাকছি তারাপীঠে|যোগাযোগ করুন|আগামী দিনে কালী তত্ব এবং আরো কালী কথা নিয়ে আপনাদের সামনে আসবো|পড়তে থাকুন|ভালো থাকুন|ধন্যবাদ|