শ্রাবন মাস কেনো শিবের মাস

47

শ্রাবন মাস এলেই লক্ষ্য লক্ষ্য শিব ভক্ত বাবার মাথায় জল অর্পন করতে বেরিয়ে পড়েন|পালন হয়ে শ্রাবনের বিশেষ ব্রত|সারা শ্রাবন মাস জুড়ে কেউ শিব পুরান ও শিব স্তোত্র পাঠ করেন আবার কেউ ওঁম নমঃ শিবায়ঃ মন্ত্র জপ করেন|কারন শিব কে সন্তুষ্ট করে তার কৃপা লাভ করার এটাই শ্রেষ্ঠ সময়|কিন্তু কেনো শিবের এতো প্ৰিয় এই মাস? তার উত্তর ও আছে আমাদর পুরানে|পুরাণ মতে সমুদ্র মন্থনে ওঠা হলাহল এই শ্রাবণ মাসেই পান করেছিলেন শিব।সেই প্রচণ্ড বিষ পান করে তাঁর সারা শরীর নীলবর্ণ ধারণ করে। তাই মহাদেবের আর এক নাম নীলকণ্ঠ। সেই কারণে মহাদেবকে শ্রাবণ মাসে দুধ অথবা জল ঢেলে এবং বেলপাতা অর্পন করে পুজো করেন ভক্তরা। বিশেষ করে শ্রাবণ মাসের সোমবারগুলিতে উপবাস রেখে শিবলিঙ্গের মাথায় দুধ অথবা জল ঢালার প্রথা রয়েছে। এতে পূণ্য লাভ হয় বলে বিশ্বাস|শাস্ত্র ও বিজ্ঞান কে পাশাপাশি রাখলে দেখা যাবে আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেকটাই কমে যায় এই বর্ষা ঋতুতে|তাই বেশি তৈলাক্ত, মশলাদার খাবার এই সময় বর্জন করা উচিত। শ্রাবণ মাসে নিরামিষ খাওয়া সম্ভব হলে সবচেয়ে ভালো।আবার শিব মানেই সৃষ্টি ৷ শ্রাবণ মাসে বৃষ্টি হয়, উর্বর হয়ে ওঠে জমি ৷ কৃষি কাজের জন্য আদর্শ পরিবেশ তাই জমিতে নতুন ফসল ফলানোর সময় এই শ্রাবণ মাস|জ্যোতিষশাস্ত্র অনুসারে এই মাসে শ্রবনা নক্ষত্র গোটা জীব জগৎ কে নিয়ন্ত্রণ করে। যে কোনও শুভ কাজ ও ধর্মীয় উত্‍সব পালন করার জন্য শ্রাবণ মাস উপযুক্ত। বিবাহিত মহিলারা শ্রাবণ সোমবারের উপবাস রাখেন এবং শিবের কাছ থেকে সৌভাগ্য প্রার্থনা করেন। অনেকে আবার এই মাসের প্রথম সোমবার থেকে ষোলো সোমবারের উপবাস শুরু করেন। এই মাসের বিশেষ গুরুত্ব হল, এ সময় মঙ্গলবার পার্বতীর জন্য উপবাস রাখা হয়। এটি মঙ্গলা গৌরী ব্রত নামে পরিচিত।শ্রাবন মাসের বেশি করে ভগবানের নাম শুনলে শিব পুজো করলে এবং নিরামিষ আহার করলে আধ্যাত্মিক ভাবে মানুষের আত্মার বিকাশ হয়| শ্রাবণ মাসকে উত্‍সবের মাস হিসেবেও মনে করা হয়। রাখিবন্ধন, নাগ পঞ্চমী সহ একাধিক উত্‍সব পালন করা হয় শ্রাবণ মাসে।শিবের প্ৰিয় এই শ্রাবন মাসে শিবের কাছে নিজের মনস্কামনা পূরণের প্রার্থনা করুন। তার পর অজ্ঞানত কোনও ভুল হয়ে গেলে তার জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করুন। শিব পুরাণ অনুযায়ী শ্রাবন মাসে শাস্ত্র মেনে শিব পুজো করলে ব্যক্তি মোক্ষ লাভ করতে পারে।আগামী পর্বে শিব ও শ্রাবন মাস সংক্রান্ত অন্য কোনো বিষয় ও শাস্ত্রীয় ব্যাখ্যা নিয়ে আবার ফিরে আসবো|পড়তে থাকুন|ভালো থাকুন|ধন্যবাদ|